এশিয়া কাপ-২০১৬ বাংলাদেশে
ক্রীড়া ডেস্ক: আগেই ধারণা করা হয়েছিল টানা তৃতীয়বারের মতো এশিয়া কাপ ক্রিকেটের আসর বসতে পারে বাংলাদেশে। অবশ্য ভারত যদি অপারগতা প্রকাশ করে তবে। সত্যিই ভারত এবার এশিয়া কাপ আয়োজন করছে না। ভারত টি-টোয়েন্টি ২০১৬ বিশ্বকাপের আয়োজন করবে এবং এশিয়া কাপ আয়োজনে রাজী হচ্ছে না। সে কারণে এবার টানা তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশই আয়োজন করতে যাচ্ছে এশিয়া কাপ। সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সভায় বাংলাদেশকে এশিয়া কাপের ১৩তম আসরেরও আয়োজক নির্ধারণ করা হয়েছে। অবশ্য এই আসরের আয়োজক হতে চেয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতও। কিন্তু টানা দুটি আসর সফলভাবে আয়োজন করায় বাংলাদেশকে ১৩তম আসরেরও আয়োজক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে এবারের এশিয়া কাপ হবে ভিন্ন ফরম্যাটে। আগে ওয়ানডে টুর্নামেন্ট হলেও এবার হবে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। আর সেটা অনুষ্ঠিত হবে ২০১৬ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ৬ মার্চ পর্যন্ত। টি-টোয়েন্টি ২০১৬ বিশ্বকাপের পাশাপাশি এশিয়া কাপেরও আয়োজক ছিল ভারত। কিন্তু ভারতের উগ্রবাদী রাজনৈতিক সংগঠন শিবসেনার সাম্প্রতিক সহিংসতামূলক কার্যক্রম নিয়ে বিপাকে রয়েছে ভারতের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড। তার ওপর সম্পর্কের টানাপোড়েনের কারণে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বর্জন করার হুমকি দিয়ে রেখেছে পাকিস্তান। তাই সবকিছু বিবেচনা করে ২০১৬ এশিয়া কাপ ভারতে আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই। ফলে এই আসর আয়োজনের দায়িত্ব বর্তায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ওপর। অবশ্য এর আগে ২০১২ ও ২০১৪ এশিয়া কাপের সফল আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ। ২০১২ সালে বাংলাদেশ ফাইনালে খেললেও ২০১৪ সালে সুবিধা করতে পারেনি। তবে বাংলাদেশ বর্তমানে যে ফর্মে রয়েছে, তাতে এবার ঘরের মাঠে টাইগাররা চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

Post a Comment

 
Top