স্পোর্টস ডেস্কঃ জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় গত বছরের অক্টোবরে সবধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হন সাকিব আল হাসান। তার ওপর ১ বছর স্থগিতসহ ২ বছরের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আইসিসি। এর পর মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটি থেকে পদত্যাগ করেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক।

প্রায় ৩ মাস ধরে সেই জায়গাটি ফাঁকা ছিল। অবশেষে সাকিবের শূন্যস্থান পূরণ করল এমসিসি। ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক স্যার অ্যালিস্টার কুককে তার স্থলাভিষিক্ত করেছে তারা।

সাকিবের কাছাকাছি সময়ে ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটি থেকে সরে দাঁড়ান আরেক সদস্য ইয়ান বিশপ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ কিংবদন্তিরও বিকল্পও বেছে নিয়েছে এমসিসি। তার বদলি হিসেবে ক্রিকেটের আইনপ্রণেতা সংস্থার এই কমিটিতে যোগ দিচ্ছেন ক্যারিবীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি রিকি স্কেরিট।

এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির অন্য তিন সদস্য হলেন- অস্ট্রেলিয়ার স্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন ও তার সতীর্থ রিকি পন্টিং এবং শ্রীলংকার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা। কমিটির চেয়ারম্যান ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইক গ্যাটিং।

নতুন দুই সদস্য পেয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত গ্যাটিং। তিনি বলেন, কুক ও রিকিকে এ কমিটিতে যোগদানের অনুরোধ করা হয়েছিল। সেটা তারা গ্রহণ করায় আমি রোমাঞ্চিত।

সাকিব ২০০৭ সালের অক্টোবরে এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির সদস্য হন।এরপর নিয়মিত কমিটির সভায় যোগ দিতেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। পরে নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ায় এই কমিটি থেকে নিজ থেকে ইস্তফা নেন তিনি।

উল্লেখ্য, এমসিসির এই কমিটি বছরে দুবার সভা করে। পরবর্তী বৈঠক হবে আগামী মার্চে শ্রীলংকায়।

তথ্যসূত্র: বিবিসি।

Post a Comment

 
Top