অনলাইন ডেস্ক:  মুখে দেখে বোঝার উপায় ছিল না। এক মুখ সাদা ধবধবে দাড়ি, মাথা ভর্তি পাকা চুল, পাগড়ি। চোখে মোটা ফ্রেমের চশমা। বিমানবন্দরে চেকিংয়ের সময় কাঁপা হাতে পাসপোর্ট এগিয়ে দিতেই বৃদ্ধের হাতের দিকে লক্ষ্য করেন এক সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের জওয়ান। আর তখনই সন্দেহ হয়। চেহারায় পুরোদস্তুর বয়েসের ছাপ, অথচ হাতের চামড়া একেবারে তরতাজা, একটুও ভাঁজ পড়েনি। দিনভর নাটকের পর ম্যারাথন জেরার মুখে সামনে আসে ওই বৃদ্ধের আসল পরিচয়। জানা যায়, পাসপোর্টের ৮১ বছরের অমরিক সিং-এর আসল নাম জয়েশ পাটেল, বয়স ৩২ বছর।

রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে।
জানা গেছে, আমদাবাদের বাসিন্দা জয়েশ নাম আর বয়স ভাঁড়িয়ে জাল পাসপোর্টের সাহায্যে নিউ ইয়র্কে পালানোর চেষ্টা করছিল। মুখের মেকআপ দুর্দান্ত, কিন্তু গলা আর হাতের চামড়ায় বয়সের ছাপ ফেলতে ভুলে গিয়েছিল জয়েশ। আর তাতেই দুঁদে সিআইএসএফ জওয়ানের চোখে ধরা পড়ে যায় ওই যুবক।

সিআইএসএফ-এর এক শীর্ষকর্তা জানান, জয়েশের হাবভাব বুড়োদের মতো হলেও হাতের চামড়ায় বয়সের ছাপ ছিল না। তার উপর যে চশমাটি সে পড়েছিল, সেটি ‘জিরো পাওয়ার’-এর। সন্দেহ পাকা হলে দাড়িতে টান দিতেই সেটিও আলগা হয়ে খুলে আসে।

সিআইএসএফ-এর পক্ষে থেকে জানানো হয়েছে, ওই যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। ঠিক কী কারণে সে নাম আর বয়স ভাঁড়িয়ে পাসপোর্ট জাল করে নিউ ইয়র্কে পালানোর চেষ্টা করছিল, তা এখনও জানা যায়নি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।" সূত্র: জিনিউজ

Post a Comment

 
Top