নিউজ ডেস্কঃ মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ট্রাকের সাথে সংঘর্ষের ঘটনায় সিএনজি অটোরিক্সার যাত্রী মো. নাসির উদ্দিন (৫০) মারা গেছেন। একই দূর্ঘটনায় আহত উনার স্ত্রী রেহানা পারভীন (৪০) এর অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন তাঁর পরিবার। তবে তাঁদের সন্তান ঐশী (৫)'র অবস্থা অনেকটা শঙ্কামুক্ত।

নিহত নাসির হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানার বাসিন্দা এবং ঔষধ কোম্পানী ইউরো ফার্মার কুলাউড়া উপজেলার মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করতেন।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জিস্কা ফার্মার এরিয়া ম্যানেজার মো. মহসিন বলেন, বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত নাসিরের স্ত্রীর অবস্থাও আশঙ্কাজনক জানিয়েছেন তাঁর পরিবার।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রাত সাড়ে ১২টার দিকে নাসিরের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে রাত ১০ টার দিকে কুলাউড়া পৌর শহরের স্কুল চৌমহনী এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের সাথে যাত্রীবাহী ওই সিএনজি অটোরিক্সার সংঘর্ষ হয়।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে মো. নাসির স্ত্রী ও সন্তানসহ সিএনজি অটোরিক্সাযোগে (মৌলভীবাজার থ ১১-৭৫০৬) মৌলভীবাজার থেকে কুলাউড়ায় আসছিলেন। কুলাউড়া শহরের স্কুল চৌমুহনী এলাকায় প্রবেশের সময় অন্ধকারে সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো ট ১৮-৫৪৮৩) সাথে সংঘর্ষ ঘটে। এতে ওই সিএনজি অটোরিক্সা দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং যাত্রীরা গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের একটি দল আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। পরে স্বামী ও স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন কুলাউড়া হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. জাকির হোসেন। সিলেট যাওয়ার পথে রাত সাড়ে ১২টার দিকে নাসিরের মৃত্যু হয়।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়ারদৌস হাসান বলেন, থানায় এ ব্যাপারে এখনো কোনো মামলা হয়নি। তবে ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশাটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

Post a Comment

 
Top