অনলাইন ডেস্কঃ নিজের সন্তানকে বিমানবন্দরে রেখেই বিমানে উঠে পড়লেন মা। বিমান মাঝ আকাশে, তখন মনে পড়েছে সন্তানকে তিনি রেখে এসেছেন। আর এমন ঘটনায় মালয়েশিয়াগামী বিমানটি মাঝ আকাশ থেকে ঘুরে জরুরি অবতরণ করে জেদ্দা বিমানবন্দরে। মঙ্গলবার এ খরব জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই মা তার সন্তানের কথা ভুলে গিয়েছিলেন, যাত্রীরা ক্যাবিন ক্রুকে এমন কথা জানানোর পর কুয়ালালামপুরের পথে থাকা পাইলট জেদ্দা বিমানবন্দরে ফেরার অনুমতির অনুরোধ জানান। এতে বলা হয় পাইলটের অনেক অনুরোধে বিমানবন্দরের এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার বিমানটিকে ফেরার অনুমোদন দেন।

বিমানবন্দরের এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলকে পাইলটের করা কলের কথোপকথনটি প্রকাশ পেয়েছে।

এতে দেখা যায় পাইলট বলছেন, আল্লাহ আমাদের সহায় হোন, আমরা কি ফিরে আসতে পারি?

দৃশ্যটি দেখে মনে হয়েছে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলারদের জন্য এ ধরনের ঘটনা এটিই প্রথম ছিল, এ অনুরোধে অপারেটর কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন। তিনি কী উত্তর দিতে পারেন, তা নিয়ে অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করছেন এমনটি শোনা গেছে।

অন্য সহকর্মীদের তিনি বলেন, এই ফ্লাইটটি ফিরে আসতে চেয়ে অনুরোধ জানাচ্ছে। এক যাত্রী ওয়েটিং এলাকায় ভুলে তার বাচ্চাকে রেখে গেছেন।

এ সময় পাইলট ওই অপারেটরকে বলেন, আমি আপনাকে বলেছি, এক যাত্রী টার্মিনালে তার বাচ্চাকে রেখে গেছেন আর ফ্লাইটের সঙ্গে যেতে অস্বীকার করছেন।

এরপর কিছুক্ষণ বিরতি দেওয়ার পর ফ্লাইট এসভি৮৩২-কে বিমানবন্দরে ফেরার অনুমতি দেওয়া হয়।

পরে বিমানটিকে ফেরার অনুমতি দেয় এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার।

বিমানের যান্ত্রিক সমস্যা ও যাত্রীদের অসুস্থতার ঘটনা বাদে অন্য কোনো ঘটনায় মাঝপথ থেকে উড়োজাহাজের ফিরে আসার ঘটনা বিরল। বিমানটি ফিরে আসার পর ওই মা ও সন্তান ফের একত্র হন। তবে গণমাধ্যম ওই মা ও সন্তানের পরিচয় জানাননি। এ নিয়ে আর বিস্তারিত কিছু উল্লেখ করা হয়নি।

Post a Comment

 
Top